Home / Tech News / দেশে 5G চালু হলে যেসব সুবিধা পাওয়া যাবে

দেশে 5G চালু হলে যেসব সুবিধা পাওয়া যাবে

সবচেয়ে দ্রুতগতি সম্পন্ন নেটওয়ার্ক পরিসেবা হল ফাইভ জি। খুব সহজেই   ইন্টারনেট  সেবা পৌছে যাবে সকলের কাছে। ফাইভ জি এর ফলে যোগাযোগ হবে আরো সহজ ও দ্রুতগতি সম্পন্ন।

১. ফোর জি’র থেকে একশো গুণ স্পিড বেশি ফাইভ জি’তে। এই কানেক্টিভিটির মাধ্যমে ‘বাফারিং‘ শব্দটাই হয়তো মুছে যাবে! কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই এইচডি মুভি ডাউনলোড করা যাবে।

২. ফাইভ জি  নেটওয়ার্ক হবে দূষণহীন । ফোর জি-র তুলনায় এই ফাইভ জিতে  নেটওয়ার্ক কম পাওয়ার কনজিউম করে। ফলে ফোনের ব্যাটারির চার্জ  অপচয় হবে না এবং ব্যাটারির আয়ু বাড়বে।

৩. ফাইভ জি এর ফলে  চিকিৎসা ক্ষেত্রেও ব্যাপক পরিবর্তন আসবে। ফাইভ জি নেটওয়ার্ক ব্যবহারের মাধ্যমে যে কোনো জায়গায় যে কোনো সময় চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া যাবে।

৪. দূর থেকে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে অস্ত্রোপচারের মতো বিষয়। ফাইভ জি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে নিমেষেই ড্রোনের মাধ্যমে প্রত্যন্ত অঞ্চলে চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া সহজ হবে।

৫. শহরে দূষণের হালহকিত স্মার্টফোনে এক ক্লিকেই পাওয়া সম্ভব হবে।

৬.  দুর্গম জায়গা, প্রত্যন্ত অঞ্চল এমনকি খনির নীচেও কর্মীরা নির্ঝঞ্ঝাটে গোটা দুনিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে পারবেন এই ফাইভ জি নেটওয়ার্ক এলে।

৭. ফাইভ জি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে রিমোট পরিচালিত যানবাহন ও মেশিনকেও নির্ঝঞ্ঝাটে চালানো সম্ভব হবে। যেটা টুজি, থ্রিজি ও ফোর জি-তে যেটা অকল্পনীয়, ফাইভ জি-তে অনায়াসে তা সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!